• বুধবার, ১০ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:০৮ পূর্বাহ্ন

চাকরির পরীক্ষায় ডিভাইস নিয়ে ধরা, ৩ তলা থেকে লাফ

Reporter Name / ৭১ Time View
Update : রবিবার, ৩ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

ডিভাইস নিয়ে চাকরির পরীক্ষা দিতে গিয়ে ধরা পড়েছেন তারেক মাহমুদ জুয়েল নামে এক যুবক। পরে তিনি তিন তলা থেকে লাফিয়ে পড়ে গুরুতর আহত হন।

তিনি বস্ত্র অধিদপ্তরের একটি নিয়োগ পরীক্ষায় অংশ নিয়েছিলেন। শনিবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে খিলগাঁও স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশ জানিয়েছে, প্রক্সি (অন্যজনের পরীক্ষা) দিতে এসে ডিভাইসসহ ধরা খেয়ে পালানোর জন্য লাফ দেন জুয়েল। আর জুয়েলের স্বজনরা বলছেন, পরীক্ষা ভালো না হওয়ায় হতাশা থেকেই তিনি লাফ দিতে পারেন। তবে কি কারণে তিনি লাফিয়ে পড়েছেন সে বিষয়ে মুখ খুলছেন না জুয়েল।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, পাট ও বস্ত্র অধিদপ্তরের ল্যাব সহকারী পদে লিখিত পরীক্ষা ছিল। খিলগাঁও স্কুল অ্যান্ড কলেজ কেন্দ্রে সকাল ১০টায় পরীক্ষা শুরু হয়ে চলে ১১টা পর্যন্ত। ওই স্কুলের সহকারী শিক্ষক মীর নাসির উদ্দিন জানান, স্কুলের তিন নম্বর ভবনের তৃতীয় তলায় আসন ছিল ওই যুবকের। তিনি কানে ডিভাইস লাগিয়ে পরীক্ষা দিচ্ছিলেন। ধরা পড়ার পর তাকে অধ্যক্ষের কাছে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল। এ সময় তিনি তৃতীয় তলা থেকে লাফিয়ে নিচে পড়েন। সঙ্গে সঙ্গে তাকে উদ্ধার করে পুলিশের সহযোগিতায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

খিলগাঁও থানার ওসি মনির হোসেন মোল্লা বলেন, ওই যুবক নিয়োগ পরীক্ষা দিতে এসে ডিভাইসসহ ধরা পড়েন। তিনি কারও প্রক্সি পরীক্ষা দিতে এসেছিলেন। কারণ ওই স্কুল এবং পাট ও বস্ত্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্টদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, তারেক মাহমুদ জুয়েল নামে কোনো পরীক্ষার্থী ছিল না।

এদিকে জুয়েলের বড় ভাই সোলাইমান আলী জানান, জুয়েলের ফোন থেকেই তাকে খবর দেওয়া হয়, সে ভবন থেকে লাফিয়ে পড়ে আহত হয়েছে। পরে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এসে তাকে আহত অবস্থায় দেখতে পাই। সোলাইমান আলী জানান, হাসপাতালে গিয়ে তিনি জানতে পারেন জুয়েল বস্ত্র অধিদপ্তরে চাকরির পরীক্ষা দিতে ঢাকায় এসেছিল। এ বিষয়ে আগে থেকে কিছুই জানতেন না। তার ধারণা চাকরির বয়স আর বেশিদিন নেই জুয়েলের। এ কারণে হতাশা থেকে সে আত্মহত্যার উদ্দেশ্যে লাফ দিয়ে পড়তে পারে।

সোলাইমান আলী জানান, তিনি বাড্ডা এলাকায় ভাড়া থাকেন। আর জুয়েল ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার পিয়াজু গ্রামের বাড়িতে থাকেন। গ্রামে তিনি কৃষি কাজ করেন। স্ত্রী ও এক সন্তান রয়েছে জুয়েলের। তার বাবার নাম মোজাম্মেল হক।

খিলগাঁও থানার এসআই নৃপেন্দ্র নাথ বিশ্বাস জানান, জুয়েলকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তার মাথায় সিটিস্ক্যান ও পায়ের এক্স-রে করানো হয়েছে। তার বাম পা ভেঙে গেছে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসকরা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category