• সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১১:৫৬ পূর্বাহ্ন

প্রতিযোগিতা আমার রক্তে রয়েছে: সানিয়া মির্জা

Reporter Name / ২১৮ Time View
Update : রবিবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৩

ভারতের মাহিন্দ্রা গ্রুপের চেয়ারম্যান শিল্পপতি আনন্দ মাহিন্দ্রা। তিনি প্রায়ই তার অনুরাগী এবং অনুসারীদের জন্য অনুপ্রেরণাদায়ক বিষয়বস্তু সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে শেয়ার করে থাকেন। তার দেওয়া জীবন বিষয়ক পরামর্শ এবং ভিডিও পোস্টেগুলো মানুষের মুখে হাসি নিয়ে আসে।

মাহিন্দ্রা এবার ভারতের টেনিস সেনসেশন সানিয়া মির্জাকে নিয়ে একটি অনুপ্রেরণামূলক পোস্ট তার টুইটারে শেয়ার করেছেন। ‘হ্যাশ মানডে মোটিভেশন’-এ তিনি পোস্টটি শেয়ার করেছেন, যেটি ইতোমধ্যে ভাইরাল হয়ে গেছে।

তার পোস্টে সানিয়া মির্জার একটি ছবিও রয়েছে। ছবিতে সানিয়া লিখেছেন, ‘প্রতিযোগিতা আমার রক্তে রয়েছে। আমি যখনই কোর্টে পা রাখি, আমি জিততে চাই। তা শেষ স্ল্যাম হোক বা শেষ মৌসুমই হোক।’

উল্লেখ্য, সানিয়া মির্জা সম্প্রতি পেশাদার টেনিসকে বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। দুবাইতে অনুষ্ঠিত আগামী ডব্লিউটিএ-১০০০ টুর্নামেন্টের পরে টেনিস থেকে অবসর নেবেন তিনি।

সম্প্রতি তিনি নারী টেনিস অ্যাসোসিয়েশনে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে এই কথা জানিয়েছেন। অবসরের কারণ হিসেবে তার স্বাস্থ্যসংক্রান্ত সমস্যার কথাও বলেছেন তিনি। তার দাবি, বহুদিন ধরে কাফ মাসলের চোটের সমস্যায় ভুগছেন তিনি। সানিয়াকে এখন পর্যন্ত ভারতের সর্বশ্রেষ্ঠ টেনিস খেলোয়াড়। তার ঝুলিতে ছয়টি গ্র্যান্ড স্ল্যাম ডাবলস শিরোপা আছে। এ ছাড়া ২০১৬ সালে অস্ট্রেলিয়া ওপেনে নারীদের ডাবলস শিরোপা জিতেন তিনি।

মাহিন্দ্রা তার টুইটের ‘হ্যাশ মানডে মোটিভেশন’লিখেছেন, ‘তিনি (সানিয়া মির্জা) যেভাবে ক্যারিয়ার শুরু করেছেন, সেভাবেই শেষ করেছেন। কাজের প্রতি সীমাহীন ক্ষুধা তার সফলতার চাবিকাঠি।

আনন্দের পোস্ট শেয়ার করার পর ৭৩ হাজার ভিউ এবং এক হাজারের বেশি লাইক পড়েছে। অনেক শিল্পপতি আনন্দের সঙ্গে একমত হয়েছেন এবং সানিয়াকে ‘বিস্ময়কর খেলোয়াড়’ বলেছেন।

একজন টুইট ব্যবহারকারী লিখেছেন,‘সানিয়া একজন অসাধারণ ব্যক্তিত্ব। তিনি তার দেশকে অনেক খ্যাতি দিয়েছেন এবং আমরা সবাই তার কৃতিত্বের তারিফ করি। তার জন্য শুভকামনা।’

দ্বিতীয় টুইট ব্যবহারকারী যোগ করেছেন, ‘ফলাফল নির্বিশেষে আরও ভালো কর্মের জন্য আকাঙক্ষা আমাদের চালনা করে। এ কথা গীতাতেও উল্লেখ রয়েছে। সানিয়া মির্জা এবং আপনার (আনন্দ) এই কর্মের প্রতিকৃতি।’

অন্য এক টুইটার ব্যবহারকারী মন্তব্য করেছেন, ‘তিনি দেখার মতো একজন দুর্দান্ত খেলোয়াড় ছিলেন! অলিম্পিকে তার প্রতিযোগিতা সবসময়ই মজাদার এবং বিনোদনমূলক ছিল। এই বছর অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে ডাবলসে তার দৌড় অনুকরণীয় ছিল। ভারতের সেরা ক্রীড়াবিদ।’

৬ বারের গ্র্যান্ড স্ল্যাম চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়ান ওপেনে শেষ খেলেছিলেন যেখানে তিনি রোহন বোপান্নার সঙ্গে অংশীদারিত্ব করেছিলেন। এই মাসে দুবাই টেনিস চ্যাম্পিয়নশিপ ২০২৩-এ খেলার পর পেশাদার টেনিস থেকে অবসর নেবেন এই তারকা খেলোয়াড়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category