• শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:১৮ অপরাহ্ন

বিএনএম তিনশ আসনে প্রার্থী দেবে

Reporter Name / ৪২ Time View
Update : রবিবার, ১৩ আগস্ট, ২০২৩

আগামী সংসদ নির্বাচনে ৩০০ আসনে প্রার্থী দিতে চায় নতুন নিবন্ধন পাওয়া দল বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী আন্দোলন (বিএনএম)। আগামী মাসে কাউন্সিলের মাধ্যমে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পরিকল্পনাও রয়েছে তাদের। ইতোমধ্যে প্রার্থী চূড়ান্ত করার কথাও জানিয়েছেন দলটির আহ্বায়ক অধ্যাপক আব্দুর রহমান খোকন।

মহাখালীতে দলের প্রধান কার্যালয়ে সংবাদমাধ্যমকে এসব কথা বলেন বিএনএম নেতারা। বৃহস্পতিবার নির্বাচন কমিশনের (ইসি) নিবন্ধন পাওয়ার পর আনুষ্ঠানিকভাবে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন তারা।

চলতি মাসের শেষ নাগাদ বড় পরিসরে জানান দিতে আনুষ্ঠানিক সংবাদ সম্মেলন করবে নতুন দল বিএনএম। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে রাজনৈতিক দল হিসাবে বিএনএম-এর পাশাপাশি বাংলাদেশ সুপ্রিম পার্টিকেও (বিএসপি) নিবন্ধন দেয় ইসি।

বিএনএম-এর আহ্বায়ক অধ্যাপক খোকন বলেন, নির্বাচন কমিশনের সব শর্ত মেনেই আমরা নিবন্ধন পেয়েছি। উপজেলা, জেলা পর্যায়ে অফিস ও কমিটি রয়েছে। সেই তালিকা আমাদের কাছে আছে, চাইলে আপনারাও দেখতে পারেন। যারা আমাদের সমালোচনা করছেন তাদের রুচি নেই।

নির্বাচন প্রসঙ্গে তিনি বলেন, জনগণের স্বার্থে নির্বাচন হলে বিএনএম আগামী নির্বাচনে অংশগ্রহণ করবে। সারা দেশে ৩০০ আসনেই আমরা প্রার্থী ঠিক করে ফেলেছি।

বর্তমানে আহ্বায়ক কমিটি দিয়ে পরিচালিত হয়ে আসা দলটি আগামী মাসেই কাউন্সিল করে পূর্ণাঙ্গ কমিটি গঠনের পরিকল্পনার কথাও জানিয়েছে। চলতি বছর ডিসেম্বরের শেষে বা আগামী জানুয়ারিতে দ্বাদশ সংসদ নির্বাচন অনুষ্ঠানের বাধ্যবাধকতা রয়েছে। নভেম্বরে তফশিল ঘোষণা হতে পারে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

দলীয় প্রতীকে নির্বাচনে অংশ নিতে রাজনৈতিক দল হিসাবে নিবন্ধন নেওয়ার আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে। এবার নিবন্ধন পেতে ৯০টির বেশি দল আবেদন করেছিল। দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনের আগে স্বল্পপরিচিত বিএনএমসহ দুটি দলকে নিবন্ধন দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

কোনো রাজনৈতিক দলকে বা বিএনপিকে ভাঙার উদ্দেশ্যে ‘বিএনএম’ দলের নামকরণ হয়েছে কি না-এমন প্রশ্নে আহ্বায়ক খোকন বলেন, জাতীয়তাবাদের ভিত্তিতে দেশ স্বাধীন হলেও দেশে বেশির ভাগ জায়গায় জাতীয়তাবাদ প্রতিষ্ঠিত হয়নি। আমরা জাতীয়তাবাদে বিশ্বাস করি। তাই দলের নামে জাতীয়তাবাদ রাখা হয়েছে।

বিএনএম-এর সদস্য সচিব অবসরপ্রাপ্ত মেজর মুহাম্মদ হানিফ বলেন, জাতীয়তাবাদ শুধু বিএনপির একার নয়। জাতীয়তাবাদ পরিচয় নিয়েই আমরা দল গঠন করেছি। বাংলাদেশ নাম দলের সঙ্গে রাখার সিদ্ধান্ত ছিল। তাই কিছুটা মিল থাকতে পারে বিএনপির সঙ্গে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category