• শুক্রবার, ১২ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩৯ পূর্বাহ্ন
/ উদ্যোক্তা
কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার সময় থেকেই তাঁর বই পড়ার নেশা ছিল। পাঠ্যবইয়ের বাইরের বই কিনতেই মো. আব্দুল গণি বেশি টাকা খরচ করতেন। বই পড়ার এই আগ্রহ থেকে রাজশাহীর একটি বইয়ের দোকানের মালিকের বিস্তারিত...
এক প্রতিবেদনে তালিকাটি প্রকাশ করে ফোর্বস। আর্থিক, প্রযুক্তি, বিজ্ঞান, ক্রীড়া ও শিল্পকলার ক্ষেত্রে সফল তরুণদের নিয়ে করা এ তালিকার বিষয়ে প্রতিবেদনে জানানো হয়, ‘৩০ বছরের কম বয়সী টরন্টোর ৩০ তরুণ
দিনাজপুরের খানসামা উপজেলায় রাস্তার পাশে বাণিজ্যিকভাবে পেঁপে চাষ করে তাক লাগিয়ে দিয়েছেন কৃষক আলতাফ হোসেন। উপজেলার ৪ নং খামারপাড়া ইউনয়নের ২ নং ওয়ার্ডের ডাঙ্গাপাড়া গ্রামের রাস্তার ধারে আধা কিলোমিটার এলাকায়
বগুড়াতে এরকম ভালো মানের স্ট্রিট ফুডের দোকান নেই। যেখানে হাইজিন মেইনটেন করা হয়। এখানকার পরিবেশ খুব ভালো লেগেছে। সবচেয়ে বড় বিষয় হচ্ছে আমরা ৫০ টাকা দিয়ে যে বার্গার খাচ্ছি এটা ২০০
যশোরের অভয়নগরের এক্তারপুর গ্রামের হতদরিদ্র পরিবারের সন্তান আব্দুর রহমান। ২০২১ সালে করোনা মহামারির সময় সবাই যখন ঘরবন্দি ছিল, ঠিক তখন শ্রমিক বাবাকে সংসারে সহযোগিতার জন্য কিছু একটা করার চিন্তা করেন।
বাজারে আঙুরের দাম একটু বেশি। এছাড়াও সব সময় বাজার থেকে আঙুর কিনে এনে খাওয়া সম্ভব হয় না। তাই নিজে বাগান করে আর্থিকভাবে লাভবান হওয়ার চিন্তা থেকে আঙুর বাগান করার স্বপ্ন দেখেন
স্বপ্ন ছিল আইন পেশায় নিয়োজিত হবেন। কিন্তু শখের আম বাগান বদলে দিয়েছে তার জীবনের গতিপথ। দুই লাখ টাকায় শুরু করা বাগান মাত্র ৫ বছরের ব্যবধানে বছরে আয় দিচ্ছে কোটি টাকা।
উচ্চ শিক্ষা শেষ করে চাকরির পেছনে না ঘুরে ড্রাগন ফল চাষে সফলতার মুখ দেখেছেন গাজীপুরের শ্রীপুর উপজেলার বায়েজিদ বাপ্পি তাজ। প্রযুক্তি সহায়তা ও ইউটিউবের বিভিন্ন সাইটে ড্রাগন ফলের চাষ নিয়ে