• শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৫:০৮ পূর্বাহ্ন

তাঁরা রোহিঙ্গাদের ভুয়া জন্মনিবন্ধন বানিয়ে দিতেন

Reporter Name / ১৭ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪

টাকা নিয়ে রোহিঙ্গাদের ভুয়া জন্মনিবন্ধন সনদ বানিয়ে দেওয়া একটি চক্রের পাঁচজনকে গ্রেপ্তার করেছে ঢাকা মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের (ডিবি) সাইবার বিভাগ। একটি জন্মনিবন্ধন সনদ বানিয়ে দিতে চক্রের সদস্যরা ৩০ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা নিতেন।

১৩ ফেব্রুয়ারি নারায়ণগঞ্জ, বাগেরহাট ও দিনাজপুরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাঁদের গ্রেপ্তার করা হয়। আজ সোমবার সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান ডিবির অতিরিক্ত কমিশনার মোহাম্মদ হারুন-অর-রশীদ।

গ্রেপ্তার ব্যক্তিরা হলেন মো. শহিদুল ইসলাম, রাসেল খান, মোস্তাফিজুর রহমান, আবদুর রশিদ ও সোহেল চন্দ্র।

ডিবি জানায়, মেয়র, চেয়ারম্যান ও ইউনিয়ন পরিষদের সচিবদের আইডি ব্যবহার করে হাজার হাজার রোহিঙ্গার ভুয়া জন্মনিবন্ধন বানিয়ে দিয়েছেন এই চক্রের সদস্যরা। এভাবে রোহিঙ্গারা অবৈধভাবে বাংলাদেশের নাগরিক হচ্ছেন।

একটি জন্মনিবন্ধন সনদ বানিয়ে দিতে চক্রের সদস্যরা ৩০ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা নিতেন
একটি জন্মনিবন্ধন সনদ বানিয়ে দিতে চক্রের সদস্যরা ৩০ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা নিতেনছবি সংগৃহীত

গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের সম্পর্কে ডিবি বলছে, গ্রেপ্তার রশিদ দিনাজপুরের বিরল পৌরসভার কম্পিউটার অপারেটর ছিলেন। সোহেল চন্দ্র বিরল পৌরসভার ১০ নম্বর রানীপুকুর ইউনিয়ন পরিষদের কম্পিউটার অপারেটর ছিলেন। তাঁরা মেয়র, চেয়ারম্যান, ইউনিয়ন পরিষদের সচিবের জন্মনিবন্ধনের এক্সেস ব্যবহার করে ওই এলাকার বাসিন্দা হিসেবে ভুয়া জন্মনিবন্ধন সনদ দিতেন। একটি জন্মনিবন্ধন সনদ বানিয়ে দিতে চক্রের সদস্যরা ৩০ হাজার থেকে ৫০ হাজার টাকা নিতেন। গ্রেপ্তার বাকিরা তাঁদের কাছে রোহিঙ্গাদের জন্মনিবন্ধনের চাহিদা জানাতেন। চক্রের সদস্যরা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কয়েকটি গ্রুপ খুলে এই প্রতারণা করে আসছিলেন।

ডিবি সাইবার বিভাগের অতিরিক্ত উপকমিশনার মো.সাইফুর রহমান আজাদ গণমাধ্যমকে বলেন, গ্রেপ্তার ব্যক্তিদের দুই দিনের রিমান্ডে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। তাঁদের কাছ থেকে এই চক্রের আরও কয়েকজনের নাম পাওয়া গেছে। তাঁদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category