• শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০২৪, ০৬:১০ পূর্বাহ্ন

তাবলীগের দুই পক্ষের মারামারিতে নিহতের ঘটনায় মামলা

Reporter Name / ৮৫ Time View
Update : শুক্রবার, ২৮ জুলাই, ২০২৩

রাজধানীর নীলক্ষেতে তাবলিগ জামাতের দুই পক্ষের কর্মীদের মারামারিতে একজন নিহত হওয়ার ঘটনায় মামলা হয়েছে। মামলাটি করেছেন নিহত শামসুল হকের (৫৫) ছেলে নয়ন সাইদ জীবন। মাওলানা জুবায়েরের অনুসারী আনোয়ার হোসেনকে আসামি করে নিউমার্কেট থানায় মামলাটি করা হয়। তবে এখন পর্যন্ত তিনি গ্রেপ্তার হননি।

নিহত শামসুল হক তাবলিগ জামাতের আমির মাওলানা সাদ কান্ধলভির অনুসারী। হামলাকারী মাওলানা জুবায়েরের অনুসারী বলে জানিয়েছে নিহতের পরিবার।

নীলক্ষেতের বাবুপুরা জিলানী মার্কেটের মসজিদে এ ঘটনা ঘটে।

নিউমার্কেট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শফিকুল গণি বলেন, মামলার একমাত্র আসামি আনোয়ারকে গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে।

শামসুল হকের বন্ধু গোলাম সাব্বির বলেছিলেন, বিকেলে তাবলিগ জামাতের সাদ গ্রুপের অনুসারীরা নীলক্ষেত বাবুপুরা জিলানী মার্কেটের পাঞ্জেগানা মসজিদে আসরের নামাজের পরে বয়ান করছিলেন। এ সময় জুবায়েরপন্থী এক ব্যক্তি মসজিদে প্রবেশ করেন। তিনি বয়ান বন্ধ করতে বলেন। একপর্যায়ে তাঁকে (সাব্বির) ও মসজিদের মুয়াজ্জিনকে মারধর করতে এগিয়ে যান তিনি। এ সময় শামসুল হক পরিস্থিতি শান্ত করার চেষ্টা করেন। এতে হামলাকারী ক্ষুব্ধ হয়ে শামসুল হকের বুকে কিল-ঘুষি মারেন। এতে শামসুল হক অচেতন হয়ে পড়েন। পরে তাঁকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সন্ধ্যা পৌনে সাতটার দিকে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাঁকে মৃত ঘোষণা করেন।

শামসুল হক জিলানী মার্কেটে গৃহস্থালি সামগ্রী পরিষ্কারের জিনিসপত্র বিক্রি করতেন। মার্কেটের দ্বিতীয় তলায় তাঁর দোকান।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category