• বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৫৫ অপরাহ্ন

পুতিনের আবারও প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে লড়ার ঘোষণা

Reporter Name / ১৮ Time View
Update : শনিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২৩

রাশিয়ায় ২০২৪ সালের মার্চে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। নির্বাচনে আবারও লড়াই করার ঘোষণা দিয়েছেন রাশিয়ার বর্তমান প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। রাশিয়ায় ৬ বছর পর পর প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়।

শুক্রবার তিনি এ ঘোষণা দেন। এই নির্বাচনে বিজয়ী হলেই ২০৩০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকবেন তিনি।

এর আগে বৃহস্পতিবার রাশিয়ার আইনপ্রণেতারা প্রেসিডেন্ট নির্বাচনের তারিখ নির্ধারণ করেছেন। সে অনুযায়ী নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে ২০২৪ সালের ১৭ মার্চ। খবর তাসের

রুশ পার্লামেন্টের উচ্চকক্ষ ভোটের মাধ্যমে নির্বাচনের তারিখ নির্ধারিত হয়েছে। ফেডারেশন কাউন্সিলে সর্বসম্মতিক্রমে ১৬২ ভোটে পাশ হয় সিদ্ধান্তটি। ফেডারেশন কাউন্সিলের প্রধান ভ্যালেন্টিনা মাতভিয়েঙ্কো বলেন, ‘এ সিদ্ধান্তের পরিপ্রেক্ষিতে আমরা কার্যকরভাবে নির্বাচনি প্রচার শুরু করছি।’

তিনি বলেন, রুশ ফেডারেশনের অন্তর্ভুক্ত হওয়া ইউক্রেনের দোনেৎস্ক, লুহানস্ক, জাপোরিঝিয়া ও খেরসন অঞ্চলের বাসিন্দারা এবারই প্রথম রাশিয়ার এই প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে অংশ নেবেন। আমরা একসঙ্গে ভোট দিয়ে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন করার মধ্য দিয়ে আমাদের পিতৃভূমির অভিন্ন দায়িত্ব এবং ভবিতব্য ভাগ করে নিতে পারব।

এ নির্বাচনে অংশ নিতে প্রধান পাঁচ দলকে প্রার্থীদের নাম জমা দিতে বলা হয়েছে।

১৯৯৯ সালের ৩১ ডিসেম্বর প্রথমবারের মতো রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হন পুতিন। এর পর দ্বিতীয় মেয়াদেও তিনি জয়ী হন। তখন রাশিয়ার আইন অনুযায়ী টানা দুবারের বেশি একই ব্যক্তি প্রেসিডেন্ট থাকতে পারতেন না। এ কারণে ২০০৮ সাল থেকে চার বছরের জন্য প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন পুতিন।

২০১২ সালের পর থেকে প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন লৌহ মানবখ্যাত পুতিন। ২০২০ সালে রাশিয়ার সংবিধান সংশোধন করে প্রেসিডেন্টের মেয়াদ চার থেকে ছয় বছর পর্যন্ত বাড়ানো হয়। এ ছাড়া রাশিয়া আইন পাশ করে একই ব্যক্তির প্রেসিডেন্ট থাকার মেয়াদের নীতি বদল করে। তাই ২০২৪ সালে প্রেসিডেন্ট হতে কোনো বাধা নেই ৭১ বছর বয়সি পুতিনের।

সেনাবাহিনীর এক অনুষ্ঠানে পুতিন বলেন, আমি এটা গোপন করতে চাই না। আমি বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রকম ভেবেছি। তবে এখন সিদ্ধান্ত নেওয়ার সময়। আমি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট হিসেবে লড়তে চাই।

এ সময় রাশিয়ার সেনাবাহিনীর এক শীর্ষ কর্মকর্তাও পুতিনকে ফের নির্বাচনে লড়ার জন্য আহ্বান জানান। সেনাবাহিনীর ওই শীর্ষ কর্তা বলেন, রাশিয়ার আপনার মতো নেতৃত্বই দরকার।

মার্চের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে জয় পেলে পুতিন ২০৩০ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থাকতে পারবেন এবং আবার প্রেসিডেন্ট পদে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিলে তিনি আরেক মেয়াদে ২০৩৬ সাল পর্যন্ত ক্ষমতায় থেকে যেতে পারেন।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category